সোমবার   ০৪ জুলাই ২০২২   আষাঢ় ২০ ১৪২৯   ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

 ফরিদপুর প্রতিদিন
সর্বশেষ:
ফরিদপুরে স্কুল মাঠে পশুর হাট বন্ধ করলেন ইউএনও প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে হবে তরল জ্বালানি ঈদুল আযহা উপলক্ষে এক লক্ষ তিনশত মে.টন ভিজিএফ চাল বরাদ্দ বোয়ালমারীতে ১০ ভিক্ষুক পেলেন ১০ ছাগল সরকার আমকে বিশ্ববাজারে নিতে কাজ করছে
৭৮

১৯৯ করে আউট ম্যাথুস, টেস্ট ক্রিকেটে এমন ঘটনা আরও যতবার

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬ মে ২০২২  

টেস্ট ক্রিকেটে সর্বশেষ ১৯৯ রান করে আউট হয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার ফাফ ডু প্লেসিস। ২০২০ সালের ২৬ ডিসেম্বর জোহানেসবার্গের সুপারস্পোর্টস পার্কে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এ দুর্ভাগ্যের শিকার হন তিনি। আজ (১৬ মে) আবারও একই দৃশ্যের অবতারণা ঘটলো চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।

স্বাগতিক বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৩৯৭ রানে অলআউট হয়েছে শ্রীলঙ্কা। শেষ ব্যাটার হিসেবে আউট হয়েছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। তার আগে তিনি ১৯৯ রান করেছেন। বল খেলেছেন ৩৯৭টি। এতে ১৯টি চারের সঙ্গে একটি ছক্কার মারও রয়েছে।

অফ স্পিনার নাঈম হাসান ১৫৩তম ওভারের শেষ বলটা করতে আসেন। তার আগে শ্রীলঙ্কার অভিজ্ঞ এই ব্যাটারকে চাপে ফেলতে মিড অন, মিড অফ ও মিড উইকেটকে ৩০ গজে এনে ফিল্ডিংয়ে কিছুটা পরিবর্তন আনেন তিনি। টেস্ট ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল শতক থেকে তখন মাত্র এক রান দূরে ম্যাথুস। সেই চাপেই কি না কিছুটা মনোযোগ হারিয়ে ফেললেন লঙ্কান ব্যাটার। নাঈমের বলটি লেগ সাইডে ঠেলে খেলতে গিয়ে স্কয়ার লেগে দাঁড়ানো সাকিব আল হাসানের হাতে ক্যাচ তুলে দেন তিনি। এর মধ্য দিয়ে নয় ঘণ্টারও বেশি সময় পর এক অবিশ্বাস্য ইনিংসের সমাপ্তি ঘটলো।

টেস্টে ক্রিকেটে এর আগে ১৯৯ রান করেছেন ১৩ জন ব্যাটার। তাদের মধ্যে শ্রীলঙ্কার কুমারা সাঙ্গাকারা ও জিম্বাবুয়ের এন্ড্রি ফ্লাওয়ার ১৯৯ রান করে অপরাজিত ছিলেন। অর্থাৎ সঙ্গী ব্যাটাররা সবাই আউট হয়ে যাওয়ায় তারা আর দ্বি-শতক পূর্ণ করতে পারেননি। বাকিরা সবাই ১৯৯ রান করে আউট হয়েছেন।

তালিকায় থাকা অন্যরা হলেন- ১৯৮৪ সালে ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের মুদাস্সার নাজার, ১৯৮৬ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভারতের মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন, ১৯৯৭ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার এলিয়ট, একই বছর পরের মাসেই ভারতের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার সনাৎ জয়সুরিয়া, ১৯৯৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ ওয়াহ, ২০০১ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জিম্বাবুয়ের এন্ড্রি ফ্লাওয়ার, ২০০৬ সালে ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের ইউনুস খান, ২০০৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ইংল্যান্ডের ইয়ান বেল, ২০১২ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার কুমারা সাঙ্গাকারা, ২০১৫ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার স্টিভেন স্মিথ, ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের লোকেশ রাহুল, ২০১৭ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার ডিন এলগার ও ২০২০ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার ফাফ ডু প্লেসিস।

 ফরিদপুর প্রতিদিন
 ফরিদপুর প্রতিদিন
এই বিভাগের আরো খবর