রোববার   ২৯ জানুয়ারি ২০২৩   মাঘ ১৬ ১৪২৯   ০৮ রজব ১৪৪৪

 ফরিদপুর প্রতিদিন
সর্বশেষ:
পাকিস্তানের সাবেক মন্ত্রীর মুখে বাংলাদেশের উন্নয়ন শেখ হাসিনা তরুণদের ভবিষ্যৎ নিয়ে কাজ করছেন: শামীম ওসমান গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফাইনাল রাউন্ডে ব্রাজিল বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু-শনাক্ত কমেছে
১২৪

জার্মানিতে ২৫ সন্দেহভাজন সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৮ ডিসেম্বর ২০২২  

অভিযান চালিয়ে ‘অভ্যন্তরীণ সন্ত্রাসী সংগঠনের’ ২৫ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে জার্মানির পুলিশ৷ গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা ‘রাইশব্যুর্গার আন্দোলনের’ সঙ্গে জড়িত বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী মার্কো বুশমান৷

তিনি বলেন, রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সশস্ত্র হামলার পরিকল্পনা করা সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হয়েছে৷ জার্মানির ১৬টি রাজ্যের ১১টিতে অভিযান চালানো হয়৷

কর্তৃপক্ষ বলছে, গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা ‘একটি সন্ত্রাসী সংগঠনের সঙ্গে জড়িত, যেটি ২০২১ সালের নভেম্বরে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে’৷

‘রাইশব্যুর্গার আন্দোলন’-এর সঙ্গে কয়েকটি ছোট সংগঠন ও ব্যক্তি জড়িত৷ সাধারণত ব্রান্ডেনবুর্গ, মেকলেনবুর্গ-ফোরপোমান ও বাভারিয়া রাজ্যে তারা সক্রিয়৷

জার্মান ‘রাইশ’ শব্দের অর্থ সাম্রাজ্য, আর ‘ব্যুর্গার’ মানে হচ্ছে নাগরিক৷ রাইশব্যুর্গাররা নিজেদের জার্মান সাম্রাজ্যের নাগরিক বলে দাবি করেন৷ আধুনিক জার্মানিকে নিজেদের রাষ্ট্র বলে মানতে রাজি নন তারা৷ তাদের দাবি, ১৯৩৭ বা ১৮৭১ সালের জার্মান সাম্রাজ্যের সীমানাই আসল জার্মানি৷ বর্তমান জার্মানির সরকার, পার্লামেন্ট, বিচারব্যবস্থা এবং নিরাপত্তাবাহিনীকেও তারা মিত্রশক্তির নিয়ন্ত্রণে থাকা পুতুল বলে মনে করেন৷

রাইশব্যুর্গাররা ট্যাক্স বা জরিমানা দিতে চান না৷ নিজেদের বাড়ি-ঘর, সম্পদ ইত্যাদিকে জার্মান প্রজাতন্ত্রের অধীনে নয়, বরং স্বাধীন বলে বিবেচনা করেন৷ তারা জার্মান সংবিধান ও আইন স্বীকার করেন না, কিন্তু সেই আইন ব্যবহার করেই সরকার ও কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অজস্র মামলা করেন৷ তাদের অধিকাংশই নিজেদের তৈরি পাসপোর্ট ও ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যবহার করেন৷

 ফরিদপুর প্রতিদিন
 ফরিদপুর প্রতিদিন
এই বিভাগের আরো খবর