শুক্রবার   ১৮ জুন ২০২১   আষাঢ় ৪ ১৪২৮   ০৮ জ্বিলকদ ১৪৪২

 ফরিদপুর প্রতিদিন
সর্বশেষ:
আগামী জুনে চলবে মেট্রো রেলের উত্তরা-আগারগাঁও অংশ বৈশ্বিক শান্তি সূচকে সাত ধাপ উন্নতি বাংলাদেশের গোয়ালন্দে মৎস্য চাষিদের মাঝে মাছের খাদ্য বিতরণ মহম্মদপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এক ব্যতিক্রম স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র আগামী মার্চে শুরু হবে পাতাল রেলের কাজ বার্ড ফ্লুর টিকা তৈরি হচ্ছে ঝিনাইদহে জুলাই থেকে বড় পরিসরে শুরু হবে টিকাদান
৮৪

হামাসের ঝাঁকে ঝাঁকে রকেট দেখে বিস্মিত ইসরায়েল

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭ মে ২০২১  

ইসরায়েলের সাথে ফিলিস্তিনির চলমান সংঘাত অষ্টম দিনে গড়িয়েছে। লড়াই যে রকম তীব্র হয়ে উঠেছে তাতে খুব শিগগিরই এটি 'পূর্ণাঙ্গ যুদ্ধে' রূপ নিতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। 

গাজায় মুহুর্মুহু বিমান হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েল। বৃষ্টির মতো রকেট ছুঁড়ে জবাবটা ভালোই দিচ্ছে হামাস। হামাসের ছোড়া ঝাঁকে ঝাঁকে রকেট হামলা তা দেখে বিস্মিত ইসরায়েল।

রবিবার ইসরায়েলের সেনাবাহিনী স্বীকার করেছে, এবারের সংঘাতে তারা ফিলিস্তিন থেকে সর্বোচ্চহারে রকেট হামলার মুখে পড়েছে।
গত ১০ মে থেকে শুরু হওয়া সংঘাতে এখন পর্যন্ত গাজা থেকে প্রায় ৩ হাজার রকেট ইসরায়েলের দিকে ছোড়া হয়েছে। এই সংখ্যাটি ২০১৯ সালে হামাসের সঙ্গে সংঘর্ষ ও ২০০৬ সালে হেজবুল্লাহ’র সঙ্গে ইসরায়েলের যুদ্ধের চেয়েও বেশি।

ইসরায়েলের সেনাবাহিনীর কমান্ডার মেজর জেনারেল অরি গর্ডিন বলেন, ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার ক্ষমতাসীন হামাস গোষ্ঠী সোমবার পর্যন্ত ইসরায়েলি ভূখণ্ড লক্ষ্য করে প্রায় তিন হাজার রকেট ছুঁড়েছে।

ইসরায়েলের সেনাবাহিনীর তথ্যমতে, ২০১৯ সালের নভেম্বরে ফিলিস্তিনের সঙ্গে এক দফায় সংঘাতে জড়ায় ইসরায়েল। তখন তিন দিনে গাজা উপত্যকা থেকে ইসরায়েলের ভূখণ্ড লক্ষ্য করে মোট ৫৭০টি রকেট ছোড়ে হামাস।

২০০৬ সালে লেবাননের সশস্ত্র সংগঠন হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধে জড়ায় ইসরায়েল। ওই যুদ্ধে ১৯ দিনে হিজবুল্লাহ প্রায় ৪ হাজার ৫০০ রকেট হামলা চালায় ইসরায়েলে।

এরপর ইসরায়েল ‘আয়রন ডোম’ নামে বিশ্বের অত্যাধুনিক আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা গড়ে তোলে। ইসরায়েল ২০১১ সালে প্রথম ‘আয়রন ডোম’ মোতায়েন করে।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর দাবি, আয়রন ডোমের মাধ্যমে তারা অধিকাংশ রকেট হামলা আকাশেই ঠেকিয়ে দিচ্ছে। তবে এবার গাজা থেকে ঝাঁকে ঝাঁকে রকেট হামলার পরিপ্রেক্ষিতে আয়রন ডোমের দুর্বলতা সামনে আসছে। গাজা থেকে ছোড়া অনেক রকেট আয়রন ডোম ফাঁকি দিয়ে ইসরায়েলে আঘাত হানতে সক্ষম হয়েছে।

এ পর্যন্ত ইসরায়েলের নৃশংস হামলায় গাজায় প্রাণহানি বেড়ে প্রায় ২০০ হয়েছে। নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে অন্তত ৫৮টি শিশু রয়েছে। ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ বলছে, এ পর্যন্ত তাদের ১০ জন নিহত হয়েছে।

 ফরিদপুর প্রতিদিন
 ফরিদপুর প্রতিদিন
এই বিভাগের আরো খবর