শুক্রবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৯   ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

 ফরিদপুর প্রতিদিন
সর্বশেষ:
রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী সব ক্ষেত্রে শুদ্ধাচার চর্চার আহ্বান আইজিপির ১০ ডিসেম্বর পরিবহন ধর্মঘট থাকছে না ফরিদপুরে চলছে দানা পেঁয়াজ চাষ ফরিদপুর পুলিশের শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার সুমন রঞ্জন সরকার চাল আমদানিতে শুল্ক সুবিধার মেয়াদ তিন মাস বাড়ল
৬৩৮

মাগুরার আমজাদ তৈরী করলেন সাত কিলোমিটার দীর্ঘ জার্মানির পতাকা

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৮ নভেম্বর ২০২২  

এবার সাড়ে সাত কিলোমিটার দীর্ঘ জার্মানির পতাকা প্রদর্শন করলেন মাগুরার আমজাদ হোসেন। গত তিন বিশ্বকাপে দীর্ঘ পতাকা উড়িয়ে সারা বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টি করেন তিনি। ইতোমধ্যে তিনি ‘পতাকা আমজাদ’ হিসেবে পরিচিতি অর্জন করেছেন। শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে এ পতাকা প্রদর্শন করা হয়।

সত্তর বছর বয়সী মাগুরা পৌর এলাকার ঘোড়ামারা এলাকার বাসিন্দা আমজাদ জানান, ২০০৬ সালের বিশ্বকাপে প্রথমে দেড় কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের জার্মানির পতাকা তৈরি করেন তিনি। ২০১০ সালের বিশ্বকাপের সময় তা বেড়ে হয় আড়াই কিলোমিটার। ২০১৪ সালে সেটি বাড়িয়ে করেন সাড়ে তিন কিলোমিটার। ২০১৮ সালে পতাকার দৈর্ঘ্য ছিল সাড়ে পাঁচ কিলোমিটার, যা বিশ্বব্যাপী আলোচিত হয়। এবার কাতার বিশ্বকাপ উপলক্ষে আমজাদ তৈরি করছেন সাড়ে সাত কিলোমিটার দীর্ঘ জার্মানির পতাকা। শুক্রবার আনুষ্ঠনিকভাবে এ পতাকা প্রদর্শন করা হয়। ২০১৮ সালে জার্মান দূতাবাসের কর্মকর্তা ক্যারেন উইজোরা মাগুরায় এসেছিলেন পতাকাটি দেখতে। 

আমজাদ বলেন, ‘আমি একবার জটিল অসুস্থতার কারণে অনেক অর্থ খরচ করেও কোনও ফল পাইনি। তখন স্থানীয় এক কবিরাজ আমাকে জার্মানির তৈরি একটি ওষুধ দিলে আমি তাতে সেরে উঠি। এরপর থেকে আমি দেশটির প্রতি কৃতজ্ঞ হয়ে পড়ি। ২০০৬ সালের বিশ্বকাপে প্রথম জার্মানির দেড় কিলোমিটার দীর্ঘ একটি পতাকা উড়াই। এরপর থেকে পতাকাটির দৈর্ঘ্য বাড়াতে থাকি। এ জন্য আমি আমার একটি জমি বিক্রি করে দিয়েছি। আল্লাহর ইচ্ছায় এখন ছেলেরা বড় হয়েছে। তারাই আমাকে সহযোগিতা করছে। গত বিশ্বকাপে জার্মান দূতাবাসের কর্মকর্তারা এসেছিলেন। তারা আমাকে সবসময় উৎসাহ দিলেও আামি তাদের ওপর নির্ভর করে পতাকা বানাইনি।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে বাংলাদেশে অবস্থিত জার্মান দূতাবাসের কর্মকর্তা ক্যারেন উইজোরা এসেছিলেন মাগুরায় পতাকাটি দেখতে। সে সময় তিনি আমজাদকে জার্মান ফুটবল ফ্যান ক্লাবের সদস্য হিসেবে ঘোষণা দেন এবং আজীবন পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।

 ফরিদপুর প্রতিদিন
 ফরিদপুর প্রতিদিন
এই বিভাগের আরো খবর