শনিবার   ৩১ অক্টোবর ২০২০   কার্তিক ১৫ ১৪২৭   ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

 ফরিদপুর প্রতিদিন
সর্বশেষ:
‘আগামী কয়েকদিন ইন্টারনেটের গতি কিছুটা ধীর হতে পারে’ সব সরকারি ওয়েবসাইট হালনাগাদ রাখার নির্দেশ সুদের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ, স্ত্রীকে ঋণদাতার হাতে দিলেন স্বামী
৭৬

ভাঙ্গায় আধিপত্য বিস্তারে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ৫০

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় নারীসহ প্রায় ৫০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় সংঘর্ষে জড়িত সন্দেহে পাঁচ জনকে আটক করেছে পুলিশ। 

উপজেলার হামিরদী ইউনিয়নের সিংগাড়িয়া গ্রামের এ সংঘর্ষের ঘটনা রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) শুরু হয়ে দফায় দফায় সোমবার (২১ আগস্ট) সকাল পর্যন্ত সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় দু'পক্ষের প্রায় ছয়টি বাড়ি ভাংচুরের ঘটনাও ঘটেছে। সংঘর্ষে গুরুতর আহত ১০ জনকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, ওই গ্রামে ইন্সপেক্টর বেলাল গং এর সাথে একই গ্রামের দেলোয়ার মাতুব্বর গং এর স্থানীয় প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। সম্প্রতি গ্রামের ঈদগাহের জমি বদলের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ বিরোধ চরম মাত্রায় রূপ নেয়।

রোববার দুপুরে দেলোয়ার মাতুব্বরের পক্ষের ইউসুফ মাতুব্বরের বাড়ির সামনে স্তুপাকারে রাখা ইট বেলাল দারোগার লোকজন নিয়ে গেছে বলে উভয় গ্রুপ সংঘবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্ত্র ঢাল, সড়কি, টেটা ও ইট পাটকেল নিয়ে দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া চালায়। প্রায় ঘণ্টাখানেক চলমান সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের কমপক্ষে ২০জন আহত হন।

পরদিন সোমবার সকালে দেলোয়ার মাতুব্বরের পক্ষের রোমান মোল্লা বাজারে যাওয়ার পথে প্রতিপক্ষের সাঈদ, আবু হায়াত, সবুজ ও সুমনের সাথে বচসা হলে ফের সংঘর্ষ বাধে। খবর পেয়ে ভাঙ্গা থানা ও দাঙ্গা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এ বিষয়ে ভাঙ্গা থানার ওসি মো. শফিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, গ্রাম্য আধিপত্যবিস্তারকে কেন্দ্র করে ইনপেক্টর বেলাল ও দেলোয়ার মাতুব্বরের দলের মাঝে সংঘর্ষ হয়। এখন পর্যন্ত এক পক্ষের অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে বরতমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

 ফরিদপুর প্রতিদিন
 ফরিদপুর প্রতিদিন
এই বিভাগের আরো খবর