শনিবার   ২০ জুলাই ২০২৪   শ্রাবণ ৪ ১৪৩১   ১৩ মুহররম ১৪৪৬

 ফরিদপুর প্রতিদিন
৬৪৪

ফার্মেসিতে অভিযান, সাড়ে ৮ ঘণ্টা বন্ধ ছিল ওষুধ বিক্রি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৫ আগস্ট ২০২৩  

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ফার্মেসিতে সাঁড়াশি অভিযান চালিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এর প্রতিবাদে সাড়ে ৮ ঘণ্টা ওষুধ বিক্রি বন্ধ রেখেছিলেন ফার্মেসি মালিকরা।

বৃহস্পতিবার (২৪ আগস্ট) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রফিকুল হক এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। অভিযানে নানা অনিয়মের কারণে চারটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও দুটি ফার্মেসিকে ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একইসঙ্গে দুটি ফার্মেসিকে সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

এদিকে অভিযানের পর বাজারের সব ফার্মেসিতে ওষুধ বিক্রি বন্ধ ঘোষণা করেন মালিকরা। এতে দুপুর ১টার পর থেকে ওষুধ ক্রেতা ও বিভিন্ন রোগীর স্বজনরা চরম দুর্ভোগের শিকার হন। পরবর্তীতে রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওষুধের দোকানগুলো চালু করা হয়।

প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে- হেলথ এইড মেডিকেল সেন্টারকে পঁচিশ হাজার, মেডিপ্লাস ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে পঁচিশ হাজার, স্কয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে পঞ্চাশ হাজার ও জননী ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে দশ হাজার, আব্দুর রহমান ফার্মেসিকে দশ হাজার ও আনোয়ারা ফার্মেসিকে দশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, লাইসেন্স না থাকা ও নবায়ন না করা, অননুমোদিতভাবে ঝুঁকি নিয়ে এক্স-রে মেশিন পরিচালনা, সি ক্যাটাগরির লাইসেন্স নিয়ে বি ক্যাটাগরি কার্যক্রম পরিচালনা, প্রয়োজনীয় ডাক্তার, নার্স ও মেডিকেল টেকনোলিজিস্ট না রেখেই ডায়াগনস্টিক সেন্টার পরিচালনা, ডেঙ্গু পরীক্ষায় সরকার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি অর্থ গ্রহণের অপরাধে ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোতে জরিমানা করা হয়।

এছাড়া লাইসেন্স ও রেজিস্টার্ড ফার্মাসিস্ট না থাকাসহ বিভিন্ন কারণে ভোক্তা স্বার্থ রক্ষায় দুটি ফার্মেসিকে জরিমানা করা হয়। একইসঙ্গে ফার্মেসি দুটিকে সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এ সময় জেলা সিভিল সার্জন মো. সিদ্দিকুর রহমান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা নাজমুল হাসানসহ থানা পুলিশের সদস্যরা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় সহায়তা করেন।

মেসার্স সিকদার ফার্মেসির মালিক জুয়েল রানা বলেন, অভিযানের পর দুপুর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে ধর্মঘট প্রত্যাহার করে পুনরায় দোকান চালু করা হয়।

নিউ আকাশ ফার্মেসির মালিক বোরহান উদ্দিন শোভন বলেন, দুপুর ১টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত ধর্মঘট পালন করা হয়। পরবর্তীতে সাধারণ মানুষ ও রোগীদের কথা চিন্তা করে ধর্মঘট প্রত্যাহার করে পুনরায় সকল ওষুধের দোকান চালু করা হয়।

এ বিষয়ে আলফাডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রফিকুল হক বলেন, নানা অনিয়মের কারণে চারটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও দুটি ফার্মেসীকে ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একইসঙ্গে দুটি ফার্মেসিতে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় তাদের সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

 ফরিদপুর প্রতিদিন
 ফরিদপুর প্রতিদিন
এই বিভাগের আরো খবর