মঙ্গলবার   ১১ আগস্ট ২০২০   শ্রাবণ ২৬ ১৪২৭   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

 ফরিদপুর প্রতিদিন
৮৩

ফরিদপুরে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার, পরিবারের দাবি হত্যা

নিউজ ডেস্ক:

প্রকাশিত: ২৬ জুলাই ২০২০  

ফরিদপুরের বোয়ালমারী পৌর এলাকায় এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে গৃহবধূর পরিবারের দাবি তাকে হত্যা করা হয়েছে।

বোয়ালমারীর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-ওসি মো. আমিনুর রহমান জানান, রোববার (২৬ জুলাই) সকালে খবর পেয়ে পুলিশ বসতঘরের আড়ার সাথে গলায় রশি নিয়ে সঙ্গীতার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সঙ্গীতার স্বামীকে থানায় আনা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ওই গৃহবধূর নাম সঙ্গীতা ভৌমিক সম্পা। সাত মাস আগে বোয়ালমারীর সাতৈর ইউনিয়নের শেরাপুর গ্রামের বিমল বিশ্বাসের ছেলে বিকাশ বিশ্বাসের সাথে তার বিয়ে হয়। শ্বশুরের চাকরির সুবাদে তারা বোয়ালমারী বাজারে ভাড়া বাড়িতে বসবাস করতেন। সঙ্গীতা ও বিকাশের মধ্যে দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্ক ছিল। গত ২ বছর আগে গোপালগঞ্জ আদালতে তাদের বিয়ে হলেও সে বিয়ে তখন মেনে নেয়নি শ্বশুরবাড়ির কেউ। নানা টানাপোড়ন শেষে সাত মাস আগে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের আবার বিবাহ দেয়া হয়।

সঙ্গীতার মা অনিতা রানী জানান, বিয়ের পর থেকেই সঙ্গীতার ওপর নানাভাবে অত্যাচার করে আসছিল বিকাশের পরিবার। এমন কী তাকে খাবার পর্যন্ত দেয়া হতো না। গভীর রাতে তাকে হত্যা করে ফাঁস লাগিয়ে তাদের শোবার ঘরের পাশে তার ননদের রুমের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে তারা। এটা পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড, আমি আমার মেয়ের হত্যাকারীদের বিচার চাই।

তবে সঙ্গীতার শ্বশুড় বিমল বিশ্বাস বলেন, স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কোন বিরোধ ছিল না, তবে সপ্তাহখানেক আগে পার্লারে যাওয়া নিয়ে সঙ্গীতাকে তার শ্বাশুড়ি একটু বকাঝকা করে। সঙ্গীতা গতরাতে তার পরিবারের কাছে নালিশ দিলে তারাও এ ব্যাপারে তার সাথে রাগারাগি করেন। আর এই অভিমানেই হয়তো সে আত্মহত্যা করেছে।

 ফরিদপুর প্রতিদিন
 ফরিদপুর প্রতিদিন
এই বিভাগের আরো খবর