বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০   অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৭   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

 ফরিদপুর প্রতিদিন
সর্বশেষ:
করোনাভাইরাস: দেশে নতুন শনাক্ত ২২৯৩, মৃত্যু ৩১ দেশে করোনার টিকা কবে আসবে, জানালেন স্বাস্থ্য সচিব শার্শায় যুবলীগের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ দেশের তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্থাপিত হবে ৬৯৩ কোটি টাকায় চোট কাটিয়ে মাঠে ফিরলেন মাশরাফি ফরিদপুরে লেপ-তোষক তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে কারিগররা যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু কারাবাস: আপিল বিভাগ
৬০

পানির নিচে হানিমুন কাজলের, এক রাতের খরচ ৪২ লাখের বেশি

প্রকাশিত: ১৪ নভেম্বর ২০২০  

টুকটুকে লাল লং বিচ গাউন। উন্মুক্ত পিঠ-উরু। স্বচ্ছ পোশাকে উঁকি দিচ্ছে শরীরী আবেদন। ঠিক এভাবেই নিজের হানিমুনের ছবি শেয়ার করেছিলেন দক্ষিনী সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী কাজল আগারওয়াল। 

৩০ অক্টোবর ব্যবসায়ী গৌতম কিচলুর সঙ্গে সাতপাকে বাঁধা পড়েন কাজল। বিয়ের পর হায়দরাবাদে একটি রিসেপশন পার্টিও দেন এই দম্পতি। এই মুহূর্তে স্বামীর সঙ্গে মধুচন্দ্রিমা কাটাতে মালদ্বীপে উড়ে গিয়েছেন তিনি।

মালদ্বীপের সৈকতে একান্তে সময় কাটানোর নানা মুহূর্তে ধরা পড়েন কাজল আগরওয়াল। বেশকিছু ছবি নিজেই ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে পোস্ট করেছেন তিনি। সেই ছবি রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সাগরের নিচে প্রথম বিলাসবহুল আবাসিক হোটেল নির্মাণ করেছে মালদ্বীপ। আর সেটির নাম রাঙলি আইল্যান্ড রিসোর্টে, যেখানে হানিমুনে গিয়েছেন কাজল আগারওয়াল। দ্বীপে পানির নিচে এই হোটেলটি অবস্থিত। হোটেলটির অবস্থান ভারত মহাসাগরের ১৬ ফুট পানির নিচে। যেখানে বসে সামুদ্রিক প্রাণীদের চলাফেরা দেখা যায়। সমুদ্রের নিচে ১৮০ ডিগ্রি প্যানারমিক ভিউতে বসে রেস্টুরেন্টের খাবারের তালিকা অনুযায়ী মালদ্বীপের গলদা চিংড়ি আর পশ্চিমা খাবার খাওয়া যায়। এই হোটেলে এক রাত থাকতে খরচ করতে হয় প্রায় ৫০ হাজার ডলার, যা বাংলাদেশি টাকায় ৪২ লাখের বেশি।

মধুচন্দ্রিমায় সেই হোটেলেই গিয়েছেন কাজল-গৌতম।

 ফরিদপুর প্রতিদিন
 ফরিদপুর প্রতিদিন