সোমবার   ২৪ জুন ২০২৪   আষাঢ় ১১ ১৪৩১   ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

 ফরিদপুর প্রতিদিন
সর্বশেষ:
অ্যান্টিভেনমের ঘাটতি না রাখতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্দেশ ভাঙ্গা-যশোর রেল লাইন: চার জেলার যোগাযোগে নতুন দিগন্ত সরকারকে ১২৫ কোটি ডলার দিচ্ছে উন্নয়ন সহযোগীরা বাংলাদেশে চালু হবে রু-পে কার্ড, ভারতে টাকা-পে সেনাপ্রধানের দায়িত্ব নিলেন ওয়াকার-উজ-জামান ঈদযাত্রা: পদ্মাসেতুতে ১৩ দিনে টোল আদায় ৪২ কোটি টাকা খালেদা জিয়ার হৃদযন্ত্রে পেস মেকার বসানোর কাজ চলছে: আইনমন্ত্রী পুলিশের এক অতিরিক্ত আইজিপি ও ৯ ডিআইজিকে বদলি-পদায়ন
১৯৩

ডায়াবেটিসে খান নারকেলের চিনি

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

গুড়, বাদামি চিনির মধ্যে অনেকেই খুঁজে নিয়েছেন চিনির বিকল্প। সেই তালিকায় যোগ হয়েছে আরও একটি নাম, কোকোনাট সুগার বা নারকেলের চিনি।

এই চিনি পরিচিত কোকোনাট পাম সুগার নামেও। প্রাকৃতিক এই মিষ্টি নারকেলগাছের ফুলের কুঁড়ি থেকে তৈরি হয়। সাধারণ চিনির মতো প্রক্রিয়াতেই তৈরি হয় কোকোনাট সুগার।

পুষ্টিবিদরা বলছেন, নারকেলের চিনিতে আছে সল্যুবল ফাইবার ইনসুলিন। ফলে এর প্রভাবে নিয়ন্ত্রণে থাকে মধুমেহ বা ব্লাড সুগার। ডায়াবেটিকদের ক্ষেত্রে চিনির বিকল্প হিসেবে খুবই কার্যকর।

রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে নারকেলের চিনি। শরীরে প্রয়োজনীয় কর্মশক্তির যোগান দেয়।

পরিমাণে কম হলেও আয়রন, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, জিঙ্কের মতো উপকারী উপাদান আছে নারকেলের চিনিতে। তাই, সাধারণ চিনির তুলনায় অনেক বেশি মাইক্রোনিউট্রিয়েন্ট শরীরে যোগান দেয় নারকেলের চিনি।

কোকোনাট সুগারে ফাইবারও রয়েছে। ফলে পেট অনেক ক্ষণ ভর্তি থাকে। ঘন ঘন খিদে পাওয়ার প্রবণতা কমে। নিয়ন্ত্রণে থাকে ওজন।

 ফরিদপুর প্রতিদিন
 ফরিদপুর প্রতিদিন