সোমবার   ২৪ জুন ২০২৪   আষাঢ় ১১ ১৪৩১   ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

 ফরিদপুর প্রতিদিন
সর্বশেষ:
অ্যান্টিভেনমের ঘাটতি না রাখতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্দেশ ভাঙ্গা-যশোর রেল লাইন: চার জেলার যোগাযোগে নতুন দিগন্ত সরকারকে ১২৫ কোটি ডলার দিচ্ছে উন্নয়ন সহযোগীরা বাংলাদেশে চালু হবে রু-পে কার্ড, ভারতে টাকা-পে সেনাপ্রধানের দায়িত্ব নিলেন ওয়াকার-উজ-জামান ঈদযাত্রা: পদ্মাসেতুতে ১৩ দিনে টোল আদায় ৪২ কোটি টাকা খালেদা জিয়ার হৃদযন্ত্রে পেস মেকার বসানোর কাজ চলছে: আইনমন্ত্রী পুলিশের এক অতিরিক্ত আইজিপি ও ৯ ডিআইজিকে বদলি-পদায়ন
৩৫৩

চরভদ্রাসনে বাতাসে দোল খাচ্ছে কৃষকের স্বপ্ন

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১ মে ২০২৪  

ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে গত এক সপ্তাহের বৃষ্টিতে তরতাজা হয়ে উঠেছে ক্ষেতের পাট গাছ। বর্তমানে মাথা উঁচু করে বাতাসে দোল খাচ্ছে কৃষকের স্বপ্ন। চলতি মৌসুমে তীব্র তাপ প্রবাহের মধ্যে দু’তিন ইঞ্চি লিকলিকে পাটগাছ নিয়ে বেশ চিন্তিত ছিলেন চাষিরা। পাটগাছের প্রাণ ফিরে পাওয়ায় কৃষকেরা ভাল ফলনের স্বপ্ন দেখছেন। 

গত বছর মৌসুম শেষে খাল বিল জলাধারে পানি স্বল্পতা থাকায় এবং বাজারে দাম পড়তি থাকায় পাটে লাভ করতে পারেননি, তবে পাটকাঠি থেকে কিছুটা খরচ উঠাতে পেরেছেন বলে জানিয়েছেন চাষিরা।

উপজেলা কৃষি অফিস জানিয়েছে, এবারে ৯৮৫ হেক্টর জমিতে পাট চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছে। পাটচাষিদেরকে সার, বীজ ও কীটনাশক দেয়া হয়েছে। এবং সময় সময় পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের পাটক্ষেত পরিচর্যারত কয়েকজন পাট চাষির সাথে সরাসরি কথা হয়। সাজ্জাদ মোল্লা এবার ৪ বিঘা জমিতে, বাবলু ৫ বিঘা, মহিউল দেড় বিঘা ও সেলিম মোল্লা ১ বিঘা জমিতে পাট চাষ করেছেন। এবারে বৃষ্টি সঠিক সময়ে হওয়ায় সেচ খরচ বেঁচে যাবে বলে জানিয়েছেন তারা। 

তারা আরও বলেন, গতবারের মত এবারও মৌসুম শেষে খালে পানি না থাকলে আমাদের খরচ অনেক বেড়ে যাবে। পাটের ভাল আঁশ পেতে পরিষ্কার পানির দরকার আর বাজারে ভাল দাম না পেলে কষ্টই বৃথা যাবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. তোফাজ্জল হোসেন বলেছেন, বৃষ্টি পাওয়ায় ক্ষেতের পাট তরতাজা হয়েছে। আশা করি, পাটের ভাল ফলন হবে এবং কৃষকেরা লাভবান হবে।

 ফরিদপুর প্রতিদিন
 ফরিদপুর প্রতিদিন
এই বিভাগের আরো খবর