শুক্রবার   ১৯ জুলাই ২০২৪   শ্রাবণ ৪ ১৪৩১   ১৩ মুহররম ১৪৪৬

 ফরিদপুর প্রতিদিন
৩১১

খাবার যেভাবে খেলে বরকত হয়

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

বরকত শব্দটি আমাদের খুবই পরিচিত। বরকত বলা হয় আল্লাহর বিশেষ অনুগ্রহে অল্পতে অধিক হওয়া। ঘরে-বাইরে, কাজেকর্মে এমনকি জীবনের প্রতিটি মুহূর্তে আমাদের কামনা থাকে এই বরকত।

প্রিয় নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামও অনেক ক্ষেত্রে নিজের জন্য বরকত লাভের দোয়া করেছেন, পাশাপাশি উম্মতকেও প্রতিটি কাজে বরকত লাভের বিভিন্ন উপায় শিখিয়েছেন।

অন্য সব কাজের মতো খাবারেও বরকতের বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ। এতে করে অল্পতেই স্বস্তি আসে, তৃপ্তি লাভ করা যায়। খাবার গ্রহণের সময় বরকত লাভের বিশেষ উপায়ের কথা জানিয়েছেন আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম। একসঙ্গে খাবার খাওয়াকে তিনি বরকত লাভের অন্যতম উপায় বলেছেন।

নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ‘তোমরা পরস্পর মিলেমিশে একসঙ্গে খাবার গ্রহণ করো এবং আল্লাহর নাম নিয়ে খাবার খাওয়া শুরু করো। কেননা, এতে তোমাদের জন্য বরকত-কল্যাণ নিহিত রয়েছে।’ (ইবনে মাজাহ, হাদিস, ২৪৪, মেশকাত, হাদিস, ৩৭০)

হজরত জাবের রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু থেকে বর্ণিত। নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আঙ্গুলগুলো এবং খাবারের পাত্র চেটে খেতে নির্দেশ দিয়েছেন এবং বলেছেন, তোমরা জান না যে, কোন আঙ্গুল বা কোন লোকমায় বরকত নিহিত রয়েছে। (মুসলিম, হাদিস, ২/ ১৭৫, মেশকাত, হাদিস, ৩৬৩)। 

এছাড়াও নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আরেক হাদিসে বলেছেন, ‘যখন তোমাদের কারও লোকমা পড়ে যায়, তখন সে যেন তা তুলে নিয়ে পরিষ্কার করে খেয়ে নেয়। লোকমাটিকে যেন শয়তানের জন্য রেখে না দেয়।’ (মুসলিম, হাদিস, ৫৪২১ ও ৫৪২৬)

 ফরিদপুর প্রতিদিন
 ফরিদপুর প্রতিদিন